গ্রিনলাইনের বাসচাপায় পা হারানো রাসেল প্রথম কিস্তির টাকা পেলেন

9
প্রথম কিস্তির টাকা পেলেন গ্রিনলাইনের বাসচাপায় পা হারানো রাসেল

অনলাইন ডেস্কঃ
গ্রিন লাইন বাসের চাপায় পা হারানো রাসেল সরকারকে প্রথম কিস্তির পাঁচ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করেছে বাস কর্তৃপক্ষ। বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে আজ সোমবার এই চেক হস্তান্তর করা হয়।

আদালতে পাঁচ লাখ টাকার চেক রাসেলের হাতে তুলে দেন গ্রিন লাইনের আইনজীবী পলাশ চন্দ্র রায়।

এ সময় আদালত বলেন, বাকি ৪০ লাখ টাকা প্রতি মাসে ৫ লাখ টাকা কিস্তি করে রাসেলকে দিতে হবে। এই মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য আদালত ১৭ অক্টোবর দিন ধার্য করে।

গত ২১ জুলাই রাসেলকে ৫ লাখ টাকার প্রথম কিস্তি পরিশোধ করতে গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষকে এক সপ্তাহ সময় দেয় হাইকোর্ট। প্রথম কিস্তির ওই টাকা আজ পরিশোধ করে গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষ।

গত ২৫ জুন প্রতি মাসে ৫ লাখ টাকা করে ৪৫ লাখ টাকা গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষকে তাদের বাসচাপায় পা হারানো রাসেল সরকারকে পরিশোধ করতে বলে হাইকোর্ট। প্রতি মাসের ৭ তারিখের মধ্যে টাকা পরিশোধ করে প্রতিমাসের ১৫ তারিখে তা আদালতকে জানাতে বলা হয়।

রাজধানীর মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে কথাকাটাকাটির জেরে গ্রিন লাইন পরিবহনের বাসচালক ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাইভেটকার চালকের ওপর দিয়েই বাস চালিয়ে দেয়। এ ঘটনায় হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হলে গত বছরের ১৪ মে বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি একে এম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলজারি করেছিলেন।

এরপর হাইকোর্ট রুলের শুনানি নিয়ে ভিন্ন একটি বেঞ্চ রাসেলকে ক্ষতিপূরণ বাবদ ৫০ লাখ টাকা দেওয়ার নির্দেশ দেয়। আদালতের ওই আদেশের পর মাত্র পাঁচ লাখ টাকা পরিশোধ করে বাকি ৪৫ লাখ টাকা পরিশোধ করতে গড়িমসি শুরু করে কর্তৃপক্ষ। পরে ওই টাকা পরিশোধের জন্য কিস্তি করে দেয়ার আবেদন করে গ্রিন লাইন। আদালত তা মঞ্জুর করে। কিস্তি করে দেয়ার পর আজ প্রথম কিস্তির টাকা পেলেন রাসেল।